আসুন… মাথা উঁচু করে দাঁড়াবার প্রতিজ্ঞা করি!

freedom

১। আচ্ছা! চুরির সংজ্ঞা কি? কেবল যে চুরি করে শুধু সে-ই চোর? নাকি যারা তাকে চুরি করতে উৎসাহিত করলো তারাও চোর? যারা চুরি করতে ইন্ধন যোগায় বা উৎসাহিত করে তারা কি চোরের চেয়ে কোন অংশে কম? ধরুন আপনার মোবাইল ফোন দরকার, কিন্তু আপনার পঞ্চাশ হাজার টাকার মোবাইল কেনার সামর্থ্য নেই। হঠাৎ একদিন অফার পেলেন যে … বিস্তারিত পড়ুন

উবুন্টু উপাখ্যানঃ মানুষের জন্য লিনাক্স!

মার্ক শাটলওয়ার্থ

শুরুর গল্পঃ শুনতে অনেকটা রূপকথার মত শোনাবে। দুষ্ট সফটওয়ার কম্পানিগুলো যখন পৃথিবীর মানুষদের তাদের হাতের মুঠোয় পুরে ফেলার চেষ্টা করা শুরু করল তখন এক আধপাগলা লোক একাই দাঁড়িয়ে গেলেন সেইসব কম্পানির বিপক্ষে। সফটওয়ার কম্পানিগুলো চাচ্ছিল সফটওয়ার লিখতে যেই কোডগুলো দরকার সেগুলোকে নিজের কাছে রাখবে, পৃথিবীর আর কেউ সেগুলো দেখতে পারবেনা। সেই কোড দিয়ে যে সফটওয়ারগুলো … বিস্তারিত পড়ুন

কেন লিনাক্স?

কেন লিনাক্স ব্যবহার করবেন? সহজ প্রশ্ন, উত্তরটাও সহজ। সমস্যাটা হচ্ছে উত্তরটা বিশাল বড়! লিনাক্স ব্যবহার করার এতগুলো কারন আছে যে একটা সাবজেক্টের তিন ঘন্টার পুরো পরীক্ষায় শুধু এই একটা প্রশ্ন দিয়ে পুরো সময় খেয়ে ফেলা সম্ভব! টেকনিক্যাল নন-টেকনিক্যাল প্রচুর ব্যাপার স্যাপার আছে এইখানে। আমরা যারা সাধারন ব্যবহারকারি তাদের টেকনিক্যাল ব্যাপারস্যাপারগুলো অত গভীরভাবে না দেখলেও চলবে। … বিস্তারিত পড়ুন

উইন্ডোজের সবচেয়ে বড় শক্তিই যখন তার সবচেয়ে বড় দূর্বলতা!

যখন প্রথম কম্পিউটার জিনিসটা দেখি তখন ক্লাস ফোর কি ফাইভে পড়ি। তখন ছিল ডসের যুগ। টেলিভিশনের মত যন্ত্রের সামনে কালো স্ক্রিনে কি কি লেখা আসে। ক্লাস নাইনে বাসা থেকে নিজের জন্য যখন পিসি পেলাম, তখন ছিল উইন্ডোজ ৯৫ এর যুগের একদম শেষের দিক। আমার পিসিতে ছিল প্রিইন্সটলড উইন্ডোজ ৯৮ (বাংলাদেশে তো পিসি কিনলেই উইন্ডোজ থাকে)। … বিস্তারিত পড়ুন

সমস্যাময় লিনাক্স?

অনেককেই বলতে শোনা যায় যে “…আর বলেন না ভাই, লিনাক্সে কয়েকদিন ছিলাম, খুবই ভেজালের জিনিস, এত্ত কঠিন যে বহুত সমস্যা হয়। পরে আবার উইন্ডোজে ফেরত আসছি…”। এই “বহুত সমস্যাটা” আসলে কি? এতই যদি সমস্যা হয় তাহলে পৃথিবীর তাবৎ সার্ভারগুলো লিনাক্সে চলতনা। এমনকি খোদ মাইক্রোসফটও তাদের সার্ভার লিনাক্সে চালাতোনা। ভাবছেন ভুল পড়ছেন? নাহ, আপনি ঠিকই পড়েছেন, … বিস্তারিত পড়ুন

পেঙ্গুইনের পয়লা প্যাকপ্যাকানি!

সোনালী চুলের ছেলেটিঃ ১৯৬৯ সালের ডিসেম্বরে যখন ছেলেটার জন্ম হয় তখনই কি সাংবাদিক এবং কবি ওলে টরভাল্ডস বুঝতে পেরেছিলেন যে তার নাতি একদিন বিশ্ব কাঁপাবে? ওলে টরভাল্ডসের ছেলে নিল‍্স বা ছেলের বউ এ্যানাও মনে হয় বুঝেছিল যে তাদের ছেলেকে একদিন পুরো বিশ্ব চিনবে এক নামে। সেজন্যই বোধহয় নোবেল প্রাইজ বিজয়ী আমেরিকান কেমিস্ট “লিনুস পলিং” এর … বিস্তারিত পড়ুন